আজ শনিবার,২১শে ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,৬ই মার্চ ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

Sample Image of Deeplaid Company Medicine

ডিপলেইড কোম্পানীর তৈরী করা প্রয়োজনীয় কিছু ওষুধ – পর্ব ০৪

ডিপলেইড কোম্পানীর ওষুধ


হোমিওপ্যাথিক ও এর সাথে আনুষঙ্গিক ওষুধ উৎপাদনে বাংলাদেশে যেসব কোম্পানী/ফার্মাসিউক্যাল কোম্পানী আছে তার মধ্যে ডিপলেইড এর নাম উল্লেখযোগ্য। প্রায় সমগ্র বাংলাদেশেই ডিপলেইড কোম্পানীর ওষুধ পাওয়া যায়। ওষুধের গুণগত মান যথেষ্ট ভালো। আমি নিজেও ডিপলেইড কোম্পানীর অনেক ওষুধ ব্যবহার করি। আজ সানরাইজ৭১ এ এই কোম্পানীর তৈরী করা কিছু ওষুধ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হলোঃ


 

  • ব্লাটাডিজ (ড্রপস – ৬০ মিলি): হাঁপানি, শ্লেষ্মাযুক্ত কাশি, শুষ্ক কাশি, কাশির সঙ্গে বুকের মধ্যে সাঁই সাঁই শব্দ, শ্বাস-কষ্ট জনিত বুকে ব্যথা, কষ্টকর শ্বাস-প্রশ্বাস।
  • ডিপি আলফা (সিরাপ – ১০০/৪৫০ মিলি): শারিরীক ও স্নায়বিক দুর্বলতা, ক্ষুধামন্দা, শরীরের ওজন বৃদ্ধি করতে, মানসিক প্রফুল্লতায়।
  • ডিপি আমলকি (সিরাপ – ১০০/৪৫০ মিলি): অরুচি, বমি, অজীর্ণতাসহ পেটের পীড়া, খুশকিজনিত কারণে চুলপড়া, চর্মরোগ ও ভিটামিন-সি এর অভাবজনিত লক্ষণে কার্যকর।
  • ডিপি অ্যাভেনা স্যাট (সিরাপ – ১০০ মিলি): এভেনা স্যাট এর বিশেষ লক্ষণসহ শারীরিক, স্নায়ুবিক ও যৌন দুর্বলতায় কার্যকর।
  • ডিপি বেলাডোনা (ড্রপস – ৬০ মিলি): যেকোন ধরনের জ্বর, মাথা ব্যথা, শরীর ব্যথা, সর্দি ও কাশি, অসুস্থ্যতাবোধ, শিশুদের জন্য বিশেষভাবে কার্যকর।
  • ডিপি বোরাক্স (সিরাপ – ১০০ মিলি): মহিলাদের (Leucorrhea) শ্বেত প্রদর রোগে ডিমের লালার মতো প্রচুর পরিমাণ স্রাবসহ নানাবিধ স্ত্রীরোগ লক্ষণ সাদৃশ্যে কার্যকর।
  • ডিপি বোরালেড (ট্যাবলেট – ৫০টি): সকল ধরনের শ্বেত প্রদর, যোনির প্রদাহ।
  • ডিপি কার্ডিনা (সিরাপ – ১০০ মিলি): হৃদযন্ত্রের দুর্বলতা, ‍বুক ধড়ফড়, অস্থিরতা।
  • ডিপি চায়না অফ (সিরাপ – ১০০ মিলি): চায়না অফ এর বিশেষ লক্ষণসহ রক্তাল্পতা, শারিরীক শীর্ণতা ও পেটের পীড়ায় কার্যকর।
  • ডিপি ডামিয়া (সিরাপ – ১০০/৪৫০ মিলি): যৌন দুর্বলতা, দ্রুত বীর্যপাত, স্নায়ুবিক দুর্বলতা, অবসাদ, সাধারন দুর্বলতা।
  • ডিপি ডায়ানিল (ড্রপস – ৩০ মিলি): ডায়াবেটিস মেলাইটাস, ইনসুলিন অনির্ভর ডায়াবেটিস মেলাইটাস, ঘন ঘন প্রস্রাব, সাধারন দুর্বলতা, ক্লান্তি ভাব, পিপাসা, ওজন কমে যাওয়া।
  • ডিপি জিনসেং (ট্যাবলেট – ১০টি): ধ্বজভঙ্গ, যৌন দুর্বলতা, জীবনী শক্তির অভাব, স্নায়ুবিক দুর্বলতা, বার্ধক্যজনিত দুর্বলতা, অবসাদ।
  • ডিপি হেপালেড (সিরাপ – ১০০ মিলি): জন্ডিস, যকৃতের প্রদাহ, লিভার সংক্রান্ত রোগ।
  • ডিপি কালমেঘ (ড্রপস – ১৫ মিলি): শিশুদের প্লীহা ও লিভার সংক্রান্ত পুরাতন জ্বর, শিশুদের জন্ডিস, পেট ফাঁপা ও উদরাময় ইত্যাদি লক্ষণে বিশেষভাবে কার্যকর।
  • ডিপি মিনা (সিরাপ ১০০ মিলি): সকল প্রকার কোষ্ঠকাঠিণ্য।
  • ডিপি মুলিন (কানের ড্রপস – ১৫ মিলি): কানের ব্যথা, কান পাকা, কানে কম শোনা, দুর্গন্ধযুক্ত পুঁজ নিঃসরণ।
  • ডিপি নাক্স (সিরাপ – ১০০ মিলি): অম্লাধিক্য, পাকস্থলীর জ্বালা, পেট ব্যথা, বুক জ্বালা।
  • ডিপি পালসেটিলা (সিরাপ – ১০০ মিলি): পালসেটিলার বিশেষ লক্ষণসহ স্ত্রীলোকের ঋতু সম্বন্ধীয় বিবিধ পীড়া ও শ্বেত প্রদর সহ স্ত্রী-জননেন্দ্রিয়ের বিভিন্ন লক্ষণে কার্যকর।
  • ডিপি রাউল (ড্রপস – ৩০ মিলি): উচ্চ রক্তচাপ, অনিদ্রা, বুক ধড়ফড় করা, বুকে ব্যথা।
  • ডিপি রিউমালেড (ড্রপস – ৩০ মিলি): নতুন ও পুরাতন বাত, সন্ধি ও মাংসপেশীর ব্যথা, গেঁটে বাত, স্নায়ুবিক বেদনা, সন্ধি ব্যথা, পিঠে ব্যথা, মচকানো এবং টানজনিত ব্যথা।
  • ডিপি সিনোলেড (ট্যাবলেট – ৫০টি): সাইনোসাইটিস, মাথা ব্যথা, মাথা ঘোরা, মাথা ভারবোধ।
  • ডিপি স্কিন কেয়ার (ড্রপস – ৩০ মিলি): একজিমার ফলে চুলকানি, চুলকানি সহ লাল হয়ে যাওয়া, বিস্ফোটক, পূঁজবটি, ত্বক পুরু হয়ে চুলকানি সহ জ্বালা।
  • ডিপি টন্সলেড (ট্যাবলেট – ৫০টি): টনসিলাইটিস, টনসিল বড় হয়ে যাওয়া, টনসিলের প্রদাহ, গলা ব্যথা, কষ্টকর গলাধঃকরণ।
  • ডিপি বাসক (সিরাপ – ১০০ মিলি): কাশি, স্বরনালীর প্রদাহ, শ্বাসনালীর প্রদাহ, ট্রাকিয়ার প্রদাহ।
  • গ্যাস্ট্রোলেড (ড্রপস – ৩০ মিলি): অতিরিক্ত অম্লত্ব, বুক জ্বালা-পোড়া, পেপটিক আলসার, পাকস্থলীর প্রদাহজনিত উপসর্গ ও স্নায়ুবিক উত্তেজনা, পেটে গ্যাস জমা, মুখে টক ও ঢেকুর ওঠা এবং পরিপাকতন্ত্রের ‍দুর্বলতা।
  • মাইগ্রালেড (ড্রপস ৩০ মিলি): মাইগ্রেন, বমিসহ মাথা ব্যথা, স্নায়ুবিক মাথা ব্যথা, মাথার পিছনের ও সামনের স্নায়ুশূল, মানসিক পরিশ্রমের পর মাথা ব্যথা।
  • জনোসিয়া অশোকা (সিরাপ – ১০০ মিলি): জনোসিয়া অশোকার বিশেষ লক্ষণসহ মহিলাদের ঋতু সম্বন্ধীয় গোলযোগ ও জরায়ু সংক্রান্ত বিভিন্ন রোগ লক্ষণ, ঋতুস্রাব শীঘ্র শীঘ্র ও প্রচুর পরিমাণে হয়ে রক্তাল্পতা দেখা দিয়ে শীর্ণতা ও দুর্বলতাসহ ইত্যাদি লক্ষণ সাদৃশ্যে কার্যকর।
  • জাস্টিশিয়া এ্যাঢাটোডা (ড্রপস – ১৫ মিলি): জাস্টিশিয়ার বিশেষ লক্ষণসহ সর্দি, কাশি, হাঁপানি, শ্বাসনালীর প্রদাহ ইত্যাদি পীড়ায় কার্যকর।
  • স্যানটোনিনাম ৩x (ট্যাবলেট – ১২০টি): গোলকৃমি ও সুতাকৃমি এ বিশেষভাবে কার্যকর।

আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি, তথ্যগুলো আপনাদের কাজে লাগবে। আগামী কোন এক দিনে আবারও আসবো নতুন কোনো স্বাস্থ্য তথ্য নিয়ে। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন।

এই পোস্টটি যদি আপনার ভালো লাগে এবং প্রয়োজনীয় মনে হয় তবে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

 

[বিশেষ দ্রষ্টব্য: এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।]

অ্যাডমিনঃ

আপনাদের সাথে রয়েছি আমি মোঃ আজগর আলী। ছোট বেলা থেকেই কম্পিউটারের প্রতি খুব আগ্রহ ছিল। মানুষের সেবা করারও খুব ইচ্ছে। আর তাই গড়ে তুলেছি স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক ওয়েবসাইট সানরাইজ৭১। আশা করছি, আপনারা নিয়মিত এই ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন এবং ই-স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন:

সাম্প্রতিক পোস্টসমুহ

আজকের দিন-তারিখ

  • শনিবার (রাত ৮:৪৯)
  • ৬ই মার্চ ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ২১শে রজব ১৪৪২ হিজরি
  • ২১শে ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)