আজ রবিবার,৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,২২শে নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

Sample Image of Corona Virus

করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে আমাদের এখনও যা করণীয়

করোনা থেকে এখনও সাবধানে থাকুন


সানরাইজ৭১ এ আপনাকে একরাশ লাল গোলাপের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। আশা করছি, অনেক অনেক ভালো আছেন। আজ আমরা মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে সাবধান হওয়ার কিছু উপায় জানবো। যদিও এই বিষয়টি বর্তমানে প্রায় উহ্য হয়ে যাচ্ছে তথাপি আমাদের সচেতন থাকাটা এখনও জরুরী। তো আর কথা নয় – চলুন মূল আলোচনায়।

করোনা ভাইরাস মূলত অনেক মানুষের জীবন কেড়ে নিয়েছে। বিভিন্নভাবে মানুষকে পঙ্গু বানিয়ে ফেলেছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে সর্বপ্রথম জ্বর, সর্দি, কাশি, গলাব্যথা এবং শ্বাস-কষ্ট দেখা দিতে পারে। সাধারণত ডায়রিয়াও হতে পারে। আর এটি যদি খুব বেশী মারাত্মক পর্যায়ে চলে যায় তবে নিউমোনিয়া হতে পারে।

আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন যে, এই ভাইরাস মূলত ফুসফুসেই সংক্রমণ বেশী ঘটায়। আর যাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম তারাই বেশী আক্রান্ত হয় এই ভাইরাসে।

করোনা ভাইরাসে যিনি আক্রান্ত হয়েছেন তার হাঁচি, কাশির যে ড্রপলেট তা থেকেও সাধারণত এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। বাতাসে অন্তত ১ মিটার দূরত্ব পর্যন্ত এই ভাইরাস চলাচল করতে পারে। আর কোনো সুস্থ্য মানুষ যদি আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসে তবে খুব সহজেই আক্রান্ত হয়ে যেতে পারে।

আক্রান্ত হলেই লক্ষণ প্রকাশ পায় না। প্রায় ১ সপ্তাহ থেকে ২ সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগে লক্ষণ প্রকাশ পেতে। আর এর ফলে কে আক্রান্ত আর কে আক্রান্ত নয় তা বোঝা খুবই মুশকিল।


 

করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে এখনও যা করতে হবেঃ

বারে বারে নিজের হাত সাবান পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। যদি আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল মেশানো হ্যান্ড ওয়াশ দিয়ে হাত ধুয়ে নিতে পারেন তাহলে আরও ভালো হয়। প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে যাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

আইসোলেশন পদ্ধতি এখনও মানাটা জরুরী বিশেষ করে পরিবারের সদস্য তথা অন্যরা যাতে সুস্থ্য থাকে সেই জন্য। ঘর থেকে বাজার-ঘাটে গেলে অবশ্যই মাস্ক পড়ুন। একই মাস্ক বারে বারে ব্যবহার করবেন না।

রাস্তার ময়লা-আবর্জনা ও ধুলো-বালি এড়িয়ে চলুন। যেখানে সেখানে কাশি দেবেন না। কাশি দিলেও রুমাল দিয়ে মুখ ঢাকুন। রুমাল না থাকলে হাতের কনুই দিয়ে মুখ ঢাকুন। বিদেশ ভ্রমণ থেকে বিরত থাকুন।

প্রবাসীরা দেশে আসলে তাদের আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দিন এবং ১৪ দিন পর্যন্ত তাদের সঙ্গ এড়িয়ে চলুন। সবার নিকট থেকে অন্তত ১ মিটার দূরত্ব বজায় রেখে কথা-বার্তা বলুন। কোনোভাবে শরীরে যদি কোনো সমস্যা দেখা দেয় তবে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিন এবং আইসোলেশনে থাকুন।

 

আজকের আলোচনা এখানেই শেষ। আশা করি, বুঝতে পেরেছেন। করোনা ভাইরাস এখনও কিন্তু শেষ হয়ে যায়নি। আমরা এখনও বিপদ-সীমার মধ্যেই আছি। তাই অনুগ্রহ করে সাবধানে থাকুন এবং সুস্থ্যভাবে বেঁচে থাকার চেষ্টা করুন।

এই পোস্টটি যদি আপনার প্রয়োজনীয় মনে হয় এবং ভালো লাগে তবে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

 

[বিশেষ দ্রষ্টব্য: এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।]

অ্যাডমিনঃ

আপনাদের সাথে রয়েছি আমি মোঃ আজগর আলী। ছোট বেলা থেকেই কম্পিউটারের প্রতি খুব আগ্রহ ছিল। মানুষের সেবা করারও খুব ইচ্ছে। আর তাই গড়ে তুলেছি স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক ওয়েবসাইট সানরাইজ৭১। আশা করছি, আপনারা নিয়মিত এই ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন এবং ই-স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন:

সাম্প্রতিক পোস্টসমুহ

আজকের দিন-তারিখ

  • রবিবার (বিকাল ৫:৪২)
  • ২২শে নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
  • ৬ই রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি
  • ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)