আজ রবিবার,৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,২২শে নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

Sample Image of Brain

স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর কার্যকরী ৬ উপায়

স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর উপায়


সানরাইজ৭১ এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা আলোচনা করবো স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর উপায় নিয়ে। আশা করি, উপকৃত হবেন। তো আর কথা নয় – সরাসরি যাচ্ছি মূল আলোচনায়।

 

জন্মের পরে প্রত্যেক শিশুরই মস্তিষ্ক সরল থাকে। তবে জন্মগত ভাবে অনেকে ত্রুটি নিয়েও আসে। সেটা ভিন্ন ব্যাপার। তবে, বুদ্ধির বিকাশ যখন থেকে শুরু হয় তখন থেকে যদি আনুষঙ্গিক কিছু নিয়ম মেনে চলা যায় তবে স্মৃতিশক্তি আরো প্রখর হয়।

আজ এমনই কিছু উপায় ও নিয়ম নিয়ে এখানে আলোচনা করবো। নিচে ক্রমানুসারে স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর উপায়গুলো নিয়ে আলোচনা করা হলো।





১। ব্যায়ামঃ হ্যা, শুরুতেই ব্যায়াম এর কথা বলাই বাঞ্চনীয়। কেননা, ব্যায়াম একজন মানুষকে ফিট রাখতে সাহায্য করে। শুধু পড়াশোনা আর ভালো খাবার খেলেই হবে না।

অবশ্যই নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে এবং ভোরবেলা তথা সকালে এটা করার অভ্যাস করতে হবে। নিয়মিত ব্যায়াম বা খেলাধুলা করলে স্মৃতিশক্তি সত্যিই ঠিক থাকে এবং প্রখর হয়।

তবে, খেলাধুলা বলতে অনলাইনে গেম খেলা বা লুডু খেলার কথা বলা হয়নি। ক্রিকেট বা ফুটবলের মতো খেলাগুলোর কথা বলা হয়েছে।

 

২। দুপুরে ঘুমানোঃ আমরা অনেকেই দুপুরেও রেস্ট নেই না। কাজ নিয়েই ব্যস্ত থাকি। এটা কোনমতেই করা উচিত নয়। এটা শরীরের জন্য ক্ষতিকর। দুপুরে খাওয়ার পরে অন্তত ৩০ মিনিট কিংবা ১ ঘন্টা রেস্ট নিলে বা ঘুমালে স্মৃতিশক্তি ঠিক থাকে।

 

৩। খাবারঃ খাবার এর কথা আর কি বলবো! ভালো থাকার জন্য অবশ্যই আমাদের সুষম খাবার খেতে হবে। তবে, পরিমানে বেশি খাওয়া যাবে না। সময় মতো খেতে হবে।

প্রোটিন ও চর্বিযুক্ত খাবার কম খেতে হবে। শাকসবজি যতোটা বেশি পরিমাণে খাওয়া যায় ততোই ভালো।





৪। রাতের ঘুমঃ আমরা প্রায়শঃই রাতে অনেক দেরিতে ঘুমাতে যাই। বিভিন্ন গবেষণায় জানা গেছে এটাও স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকর। প্রত্যেক রাতে আমাদের কমপক্ষে ৮ ঘন্টা ঘুমানো প্রয়োজন এবং সকালে তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে উঠা প্রয়োজন।

ঘুম পর্যাপ্ত হলে সারাদিনে কাজের সময় ক্লান্তি থাকে না এবং আপনার স্মৃতিশক্তিও প্রখর থাকবে। যথেষ্ট পরিমাণে ঘুম স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর ক্ষেত্রে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

 

৫। বাদাম কুচিঃ বাদাম কুচি দুধে মিশিয়ে প্রতিরাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে খান। এমনিতেও বাদাম খেতে পারেন। প্রতিদিন অল্প করে বাদাম আপনার স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করবে।

পালং শাক, অল্প রসুন কুচি, লবন, সামান্য শুকনো মরিচ, অল্প তেল দিয়ে ভেজে সেটা খান। ডিমের কুসুম খান। ডিমের কুসুমের মধ্যে মস্তিষ্কের বিকাশ ও সুস্থ্যতার জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় কোলিন পর্যাপ্ত পরিমানে আছে।

তাই ডিমের কুসুম কখনো বাদ দেয়া যাবে না খাবার তালিকা থেকে। বিশেষ করে ছোটদের জন্য ডিমের কুসুম হচ্ছে মায়ের দুধের পরে সবচেয়ে প্রয়োজনীয় খাবার।





৬। পড়াশোনা করাঃ স্মৃতিশক্তি ঠিক রাখতে নিয়মিত বিভিন্ন ধরণের বই পড়ুন। তারপর একলা মনে যখন কোথাও যাচ্ছেন তখন নিজেই অনেক কিছু মনে করার চেষ্টা করুন।

যেটার উত্তর একেবারেই মনে করতে পারলেন না তা নোট করে রাখুন এবং প্রয়োজনে বই থেকে মিলিয়ে নিন। এতে করেও আস্তে আস্তে আপনার স্মৃতি শক্তি বাড়তে থাকবে।


আজ এখানেই শেষ করছি। ফিরে আসবো অন্য দিন নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। করোনাকে ভয় নয় – সাবধানতা ও সচেতনতাই যথেষ্ট।

এই পোস্টটি যদি আপনার ভালো লাগে এবং প্রয়োজনীয় মনে হয় তবে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

 

[বিশেষ দ্রষ্টব্য: এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।]

অ্যাডমিনঃ

আপনাদের সাথে রয়েছি আমি মোঃ আজগর আলী। ছোট বেলা থেকেই কম্পিউটারের প্রতি খুব আগ্রহ ছিল। মানুষের সেবা করারও খুব ইচ্ছে। আর তাই গড়ে তুলেছি স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক ওয়েবসাইট সানরাইজ৭১। আশা করছি, আপনারা নিয়মিত এই ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন এবং ই-স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ করবেন।

One response to “স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর কার্যকরী ৬ উপায়”

  1. I like the helpful information you provide in your articles. I’ll bookmark your blog and check again here regularly. I am quite certain I’ll learn many new stuff right here! Best of luck for the next!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন:

সাম্প্রতিক পোস্টসমুহ

আজকের দিন-তারিখ

  • রবিবার (দুপুর ২:৫৭)
  • ২২শে নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
  • ৬ই রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি
  • ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)