আজ বুধবার,১১ই কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,২৭শে অক্টোবর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মহিলাদের ওভারিয়ান সমস্যা

মহিলাদের ওভারিয়ান সমস্যা ও তার চিকিৎসা সম্পর্কে জানুন

ওভারিয়ান সমস্যা


সানরাইজ৭১ এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা আলোচনা করবো মহিলাদের ওভারিয়ান সমস্যা ও তার প্রতিকার বা চিকিৎসা নিয়ে। তো আর কথা নয় – সরাসরি যাচ্ছি মূল আলোচনায়।

মহিলাদের ওভারি বা ডিম্বাশয়ে সিস্ট হওয়া বর্তমানে কমন একটি সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইদানিং অনেক নারী এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। তবে ভয় পাওয়ার কিছুই নেই। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে সাধারণত ৫০ বছরের মধ্যে হয়ে থাকে।

ওভারি বা ডিম্বাশয় হচ্ছে জরায়ুর দুই পাশে অবস্থিত দুটি ছোট গ্রন্থি, যা থেকে মহিলাদের হরমোন নিঃসরণ হয় এবং ডিম্বাণু পরিস্ফুটন হয়। ওভারিয়ান সিস্ট হলো ওভারিতে পানিপূর্ণ থলে। ঋতুবতী মেয়েদের ক্ষেত্রে প্রায়ই এই সিস্ট দেখা যায়। ওভারিয়ান সিস্ট অনেক রকম হয়ে থাকে।

অধিকাংশ মহিলার জীবদ্দশায় অন্তত একবার ওভারিয়ান সিস্টের অভিজ্ঞতা হয়েছে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে এটি ব্যথামুক্ত থাকে, শুধু রুটিন পেলভিক এক্সামিনেশনে তা বোঝা যায়, তাই অনেকে এ বিষয়টি নিয়ে সচেতন নন।

 

মহিলাদের ওভারিয়ান সমস্যা এর সিস্টের প্রকারভেদঃ

(১) ফলিকুলার সিস্ট;
(২) করপাস লুটিয়াম সিস্ট;
(৩) থেকা লুটেন সিস্ট;
(৪) ডারময়েড সিস্ট;
(৫) এন্ডোমেট্রোয়েড সিস্ট;
(৬) হেমোরেজিক সিস্ট;
(৭) পলিসিস্টিক ওভারি;
(৮) সিস্ট এডিনোমা;

 

মহিলাদের ওভারিয়ান সমস্যা যেসব কারণে হয়ে থাকেঃ

(১) অনিয়মিত মাসিক বা ঋতুস্রাব;
(২) অল্প বয়সে ঋতুস্রাব শুরু হওয়া;
(৩) বন্ধ্যত্ব;
(৪) হাইপো-থাইরয়েডিসম;
(৫) স্মোকিং;
(৬) কেমোথেরাপি বা রেডিয়েশন থেরাপি;

 

যেসব লক্ষণ বা উপসর্গ দেখা দেয়ঃ

(১) ঋতুস্রাবের আগে বা পরে তলপেটে ব্যথা;
(৩) সহবাসের সময় ব্যথা;
(৪) তলপেট বড় হয়ে যাওয়া;
(৫) কোমরে ব্যথা;
(৬) স্তনে ব্যথা, বমি ভাব;

 

মহিলাদের ওভারিয়ান সমস্যা এর ক্ষেত্রে গুরুত্বর সমস্যায় যা দেখা দেয়ঃ

(১) প্রচণ্ড তলপেটে ব্যথা;
(২) জ্বর;
(৩) মাথা ঘুরানো বা জ্ঞান হারানো;
(৪) ঘন ঘন শ্বাসত্যাগ;

 

মহিলাদের ওভারিয়ান সমস্যা এর ক্ষেত্রে শনাক্তকরণ পরীক্ষাগুলো কি কিঃ

(১) এন্ডোভ্যাজাইনাল আলট্রাসনোগ্রাম;
(২) সিটি স্ক্যান;
(৩) এমআরআই;
(৪) লেপারস্কপিক পদ্ধতিতে শনাক্তকরণ;
(৫) হরমোন লেভেল পরীক্ষা;
(৬) সেরাম ঈঅ-১২৫ পরীক্ষণ;
(৭) কাল্ডো-সেন্টেসিস;

 

চিকিৎসাঃ

ওভারিয়ান সিষ্টে আক্রান্ত হলে প্রাথমিক অবস্থাতেই একজন অভিজ্ঞ হোমিওপ্যাথি ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত।

মহিলাদের গর্ভকালীন বিভিন্ন রোগ নিয়ে আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুনঃ

মহিলাদের ওভারিয়ান সমস্যা নিয়ে আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুনঃ

আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করা হলো। আশা করি, বুঝতে পেরেছেন। আবারও হাজির হবো নতুন কোনো পোস্ট নিয়ে। সেই পর্যন্ত সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। করোনাকে ভয় নয় – কেবল সচেতন থাকুন।

এই পোস্টটি যদি আপনার ভালো লাগে এবং প্রয়োজনীয় মনে হয় তবে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

অ্যাডমিন বার্তাঃ

আপনাদের সাথে রয়েছি আমি মোঃ জাহাঙ্গীর বিন সফিকুল। ছোট বেলা থেকেই কম্পিউটারের প্রতি খুব আগ্রহ ছিল। মানুষের সেবা করারও খুব ইচ্ছে। আর তাই গড়ে তুলেছি স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক ওয়েবসাইট সানরাইজ৭১। আশা করছি, আপনারা নিয়মিত এই ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন এবং ই-স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন:

ইমেইলে পোস্ট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন:

আজকের দিন-তারিখ

  • বুধবার (ভোর ৫:৪০)
  • ২৭শে অক্টোবর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ২০শে রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরি
  • ১১ই কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
জাতীয় হেল্প লাইন