আজ শুক্রবার,১০ই বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,২৩শে এপ্রিল ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কোমরে ব্যথার কারণ, লক্ষণ ও চিকিৎসা জেনে নিন | বেস্ট অব হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা

কোমর ব্যথা


সানরাইজ৭১ এ সবাইকে স্বাগতম জানাই। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা আলোচনা করবো কোমর ব্যথা নিয়ে। হোমিওপ্যাথিতে এর খুব সুন্দর চিকিৎসা রয়েছে। অল্প টাকায় কোমর বেদনার চিকিৎসা নিতে নিকটস্থ অভিজ্ঞ হোমিওপ্যাথিক ডাক্তারের শরণাপন্ন হন। তো আর কথা নয় – চলুন সরাসরি যাচ্ছি মূল আলোচনায়।

 

রোগ বিবরনঃ ইহা হঠাৎ আক্রমণ করে। চলিতে-ফিরিতে, বসা হইতে উঠিতে, দাঁড়ানো থেকে বসিতে, নুইতে, কোন দ্রব্য তুলিতে হঠাৎ কোমরে ব্যথা আরম্ভ হয়। রোগী সোজা হইয়া দাঁড়াইতে বা হাঁটিতে পারে না।

 

চিকিৎসাঃ

ফেরাম মেটালিকম (Ferrum Metelicum): রক্তহীন ফ্যাকাসে চেহারা, শীত কাতর এই প্রকৃতির রোগীদের কোমর বেদনা সন্ধ্যার পর হইতে বাড়িতে থাকে। বিছানায় শুইয়া থাকিলে আরো বৃদ্ধি পায়। আস্তে আস্তে চলাফেরা করিলে বেদনা কিছুটা উপশম হয়। এই ক্ষেত্রে এই ওষুধ ব্যবহার করিবেন।

সেবন বিধিঃ শক্তি ৩০ বা ২০০ প্রত্যহ ২ বার করে সেব্য।

কোব্যালটম (Cobaltum): স্ত্রী সহবাসের পর অথবা স্বপ্নদোষের পর কোমরে ব্যথা হয়। সেই বেদনা বসিয়া থাকিলে বৃদ্ধি পায়। চলাফেরা করিলে বা শুইয়া থাকিলে উপশম হয়।

সেবন বিধিঃ শক্তি ৩০ সকাল বিকাল দুই মাত্রা সেব্য।

ক্যালি কার্ব (Kali Carb): অত্যন্ত শীত কাতর, মোটা-সোটা, কোমর ব্যথায় রোগী হাঁটিয়া চলিতে মাঝে মাঝে বসিয়া পরে। না বসিয়া অনেক দুর চলিতে পারে না। কোমর ব্যথা সারাক্ষণ থাকে। বেদনা ঠান্ডায় বৃদ্ধি, রাতে তিনটার পর বৃদ্ধি। জোরে চাপিয়া বা টিপিয়া ধরিলে কিছুটা আরাম পায়।

সেবন বিধিঃ শক্তি ৩০ বা ২০০ সকাল বিকাল দুই মাত্রায় সেব্য।

ইউপিয়ন (Eupion) : কোমর ব্যথা, উঠিতে বসিতে ভীষন কষ্ট, কোন কিছু না ধরিয়া দাঁড়াইতে বা বসিতে পারে না। এই ঔষধ ব্যবহারে বহু রোগী আরোগ্য হইয়াছে।

সেবন বিধি : শক্তি 6 বা 30 তিন চার ঘন্টা অন্তর।

ব্রাইওনিয়া এলব (Bryonia Alb) : গরম কাতর, খিট খিটে রাগী স্বভাব, রোগী কোমর ব্যথায় চুপ করিয়া বসিয়া বা শুইয়া থাকিলে আরাম, নড়াচরা চলা ফেরায় কোমর ব্যথার বৃদ্ধিতে ইহা উপযোগী।

সেবন বিধি : শক্তি 6 বা 30 তিন ঘন্টা অন্তর। সম্পূর্ণ উপকার না হইলে 200 বা 1m সকাল বিকাল দুই মাত্রা। ব্রাইওনিয়ার উপকার না হইলে লাইকোপোডিয়াম।

রাস টক্স (Rhus TOx) : শীত কাতর রোগী কোমর বেদনা, শয়ন থেকে উঠিতে, বসা থেকে দাঁড়াইতে অর্থাৎ প্রথম চলিতে কোমর ব্যথা বাড়ে। কিন্ত পরে চলিতে হাঁটিতে নড়াচরা করিতে বেদনার লেশ মাত্র থাকে না। চুপ করিয়া থাকিলে বৃদ্ধি নড়াচরায় উপশমে ইহা অব্যর্থ।

সেবন বিধি : শক্তি 30 তিন ঘন্টা অন্তর। 200 দিনে দুই বার।

আর্নিকা মন্ট (Arnica Mont) : ভারী বোঝা উত্তেলন করিয়া পা ফসকাইয়া পরিয়া, উঁচু থেকে নীচু নামিয়া অথবা কোমরে কোন প্রকার আঘাত লাগিয়া কোমর টনকিয়া গেলে, উঠিতে, দাড়াইতে, চলিতে ব্যথা হইলে আর্নিকা অব্যর্থ।

সেবন বিধি : শক্তি 30 বা 200 প্রত্যাহ দুই মাত্রা। পুরাতন রোগে আরো উচ্চ শক্তি।

বাইওকেমিক চিকিৎসা

ক্যালকেরিয়া ফ্লোর (Calcarea Flour) : বিছানা থেকে উচিতে বসা থেকে দাঁড়াইতে অল্প কিছু দূর হাঁটিতে কোমরে ব্যথা। কিছুক্ষন চলিবার পর ঐ ব্যথা আর থাকে না।

সেবন বিধি : শক্তি 12x ৩-৪ বড়ি এক মাত্রা প্রত্যহ সকাল বিকাল দুই বার। হোমিও মতে 200, 1m বা আরো উচ্চ শক্তি ব্যবহারে উপকার পাইয়াছি।

ফোরাম ফস (Ferrum Phos) : ঠান্ডা লাগিয়া বা অতিশয় পরিশ্রম করিবার ফলে কোমরে বেদনা হইলে ফেরাম ফস উপকারী।

সেবন বিধি : শক্তি 6x, 12x ৩-৪ বড়ি এক মাত্রা তিন ঘন্টা অন্তর।

পথ্য ও আনুষাঙ্গিক ব্যবস্থা

আক্রান্ত স্থানে সরিষার তৈল মালিশ করিলে উপকার হয়। রুটি, হালুয়া, খেজুর, কিসমিস বিভিন্ন ফল সুপথ্য। মাংস, ডিম, টক আহার নিষিদ্ধ।

অ্যাডমিনঃ

আপনাদের সাথে রয়েছি আমি মোঃ আজগর আলী। ছোট বেলা থেকেই কম্পিউটারের প্রতি খুব আগ্রহ ছিল। মানুষের সেবা করারও খুব ইচ্ছে। আর তাই গড়ে তুলেছি স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক ওয়েবসাইট সানরাইজ৭১। আশা করছি, আপনারা নিয়মিত এই ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন এবং ই-স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন:

Subscribe: Dinajpur School

সাম্প্রতিক পোস্টসমুহ

আজকের দিন-তারিখ

  • শুক্রবার (বিকাল ৩:১৯)
  • ২৩শে এপ্রিল ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১০ই রমজান ১৪৪২ হিজরি
  • ১০ই বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)