আজ বুধবার,২৯শে বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,১২ই মে ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

Sample Image of Failure in Love

ভালোবেসে যারা ব্যর্থ হয়েছেন পোস্টটি কেবল তারাই পড়ুন

ভালোবাসা ও ব্যর্থতা


সানরাইজ৭১ এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এমন একটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো যেটা আসলে মানুষের মনস্তাত্ত্বিক দিক। অর্থাৎ আমরা আমাদের জীবনে কাউকে না কাউকে ভালোবাসি। কেউ জয়ী হই আবার কেউ হই পরাজিত। আর যারা পরাজিত হই তারা অনেক সময়ই ভেঙে পড়ি। কিন্তু তাদের আসলে কি করা উচিত তাই নিয়ে এই পোস্টে আলোচনা করা হয়েছে। সময় নিয়ে পুরো পোস্ট পড়ুন। অনেক কিছুই জানতে পারবেন। তো আর কথা নয় – সরাসরি যাচ্ছি মূল আলোচনায়।

 

আমরা অনেকেই বলি, পৃথিবীটা বড়ই স্বার্থপর। কিন্তু না, পৃথিবী আসলে স্বার্থপর নয় – স্বার্থপর হলো পৃথিবীর কিছু কিছু মানুষ। যে আজ তোমায় একা করে চলে গেছে, সেও তো কম স্বার্থপর নয়।

হয়তো তুমি তাকে তোমার জীবনের চেয়েও বেশি ভালোবাসতে। তোমার মানুষটার সব চাওয়া পাওয়া যেভাবেই হোক পূরণ করতে। কখনো কি কল্পনা করেছিলে, তোমার মানুষটা তোমায় ছেড়ে চলে যাবে?

এই আঘাতগুলো আসলে সহ্য করার মতো নয়। তুমি তো এখনও বেঁচে আছো তাইনা! এটাই তোমার উচিত আর এতেই তুমি খানিকটা সফলতার পরিচয় দিয়েছো।

শোনো, আমরা মানুষ চিনতে প্রায় সময়ই ভুল করি। ভুল মানুষকে আমরা ভালোবেসে ফেলি। কিন্তু একটা সময় যখন মানুষটা আমাদের ছেড়ে অন্য কারও কাছে চলে যায় শুধু স্বার্থের জন্য তখন আমরা বুঝতে পারি – ঐ মানুষটা কেন আমার জীবনে এসেছিলো।

আর এই বুঝতে পারাটাও একটা সফলতা। কারণ, এ থেকে তুমি শিক্ষা নাও, যেনও ভবিষ্যতে আর এরকম কাউকে আবারও ভালোবেসে না ফেলো।

শোনো বন্ধু, জীবনটা তো তোমার। অন্য কারও নয়। তোমার জীবনটাকে সুন্দর করার জন্য তোমার কাছে হাজারো উপায় আছে । ও চলে গেছে তো কি হয়েছে? শুধু মনটাকে এই বলে শান্তনা দাও যে, তোমার জীবনে একটা ভুল মানুষ এসেছিলো। তাই সে তোমায় ছেড়ে চলে গেছে।

খবর নিয়ে দেখো, ও নিশ্চিন্তে অন্য কারও সাথে ডেটিং করছে অথবা সংসার করছে। তোমার কথা ওর মনেই নেই। ও যেনও জানেই না যে, তোমার মতো কেউ একজন তাকে ভালোবেসেছিলো।

বেশীরভাগ মানুষের জীবনে এরকমটাই ঘটে। কেউ মেনে নিতে পারে, আবার কেউ পারে না। যারা মেনে নিতে পারেনা তারা আসলে সব দিক থেকেই ব্যর্থ হয়।

এই তোমার কথাই বলি, এখন থেকে তুমি যদি নেশা করা শুরু করো, প্রয়োজনীয় কাজগুলো না করো, অন্য সবার সাথে সম্পর্কগুলো রক্ষা না করো তবে তোমার ভবিষ্যতটা অন্ধকার হয়ে যাবে।

মনে রেখো – মানুষের জীবনটা একটা নির্দিষ্ট বিষয়ের মধ্যে আবদ্ধ নয়। হ্যা, ভালোবাসা ছাড়া মানুষ হয় না। তাই বলে জীবন মানেই শুধু ভালোবাসা নয়।

জীবনের সাথে আরও অনেক কিছু জড়িয়ে আছে। তোমার মা-বাবা, ভাই-বোনের স্বপ্ন আছে। তোমার ভবিষ্যত সন্তানের ভবিষ্যত আছে। কিছু কিছু মানুষের পাশে দাড়ানোর  স্বপ্ন আছে, এরকম অনেক কিছু।

কেন খামোখা নিজেকে শেষ করে দিচ্ছ? পৃথিবীতে তোমার জন্য অবশ্যই একজন ভালো মনের মানুষ অপেক্ষা করছে। হয়তো সময় হয়নি, তাই এখনও খুঁজে পাওনি।

আর যাকে পেয়েছিলে, তাকে আসলে ভুল করে পেয়েছিলে। ভুল মানুষকে পেয়েছিলে।

ভালোবাসার জন্য তো তুমি সব করতে রাজি, তাই না? তোমার মধ্যে তো অনেক জেদ আছে, তাইনা? তাহলে এই জেদটাকে এখনি কাজে লাগাও।

নতুন করে বেঁচে থাকার রাস্তাটা লম্বা করে ফেলো। দেখবে – ঐ রাস্তায় হাজারো মানুষ পাবে তোমার সঙ্গী হিসেবে সব সময়।

যে চলে গেছে – সে কিন্তু বসে নেই। দেখবে, তার সন্তান হবে। সে কিন্তু তার সন্তানকে ঠিকই ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলবে। সে কিন্তু তার মানুষটার যত্ন নিতে একটুও আলসেমি করবে না।

আর তুমি যদি এভাবে কাঁদতে থাকো আর সব কিছু বাদ দিয়ে দাও তাহলে এমন একটা সময় আসবে, তখন তুমি তোমার মানুষটার সামনে তোমার মুখ দেখাতেও লজ্জা পাবে।

বিপদে পড়লে সবাই চেষ্টা করে তা থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য। আর তুমি যদি চেষ্টা না করে বসে থাকো তবে তোমার জন্য মৃত্যুটাই শ্রেয়।

বন্ধু, জীবন কারও জন্য থেমে থাকে না। জীবন তার আপন গতিতে চলতেই থাকে। ভালোবাসার মূল্যটা হয়তো আমরা সবাই বুঝি না ।

ভালোবাসাকে মূল্য দিয়ে কখনো পরিমাপ করা যাবে না। তাহলে এই ভালোবাসার জন্য কেন তুমি নিজেকে শেষ করে দিতে চাইছো?

তুমি শেষ হয়ে গেলেই কি ভালোবাসা শেষ হয়ে যাবে? তুমি পৃথিবী ছেড়ে চলে গেলেই কি সেও চলে যাবে?

জীবন সম্পর্কে এরকম সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে তোমার দিকে চেয়ে থাকা মুখগুলোর কথা একটু ভেবে নিও। এরপরেও তোমার সিদ্ধান্ত যদি হ্যা হয় তবে তোমার মতো বোকা আর অপদার্থ  কেউ নেই।

একটা কথা আছে, তুমি যাকে ভালোবাসো তাকে তুমি ছেড়ে দাও। মুক্ত করে দাও। সে যদি তোমায় সত্যিই ভালোবাসে তবে তোমার কাছেই ফিরে আসবে। আর যদি না আসে তবে সে কোনদিনই তোমার ছিলো না।

ভালোবাসা মানুষের জীবনকে অনেক সুন্দর করে। মানুষ অশান্ত জীবনে শান্তনা খুজে পায়। তাই তোমায় অনুরোধ করবো, শুধু সুন্দর মুখ দেখে কাউকে ভালোবেসো না।

ভালো যদি বাসতেই চাও তবে স্বার্থহীন একজন মনের মানুষ খুজে বের করো। তাকে আগে পরীক্ষা করে নাও। স্বার্থের পরীক্ষায় সে যদি পাশ করে তবেই তাকে নিশ্চিন্তে ভালোবেসে ফেলো।

কাউকে ভালোবেসে শুধু তাকে নিয়েই ব্যস্ত থেকো না। তোমার জীবনের বাকি কাজগুলোর প্রতি খেয়াল রাখো। ভাবছো, তোমার অনেক টাকা আছে। তোমার আবার কিসের চিন্তা?

জীবনে উথ্যান-পতন কখন যে কিভাবে আসবে তা বুঝা বড়ই মুশকিল। রাস্তায় পড়ে থাকা মানুষগুলোর দিকে খেয়াল করেছো কি? তাদেরও কিন্তু মন আছে। তারাও কিন্তু ভালোবাসতে চায়। তোমার মতো করে সব কিছু করতে চায়।

কিন্তু কেন পারে না তা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছো। তাই বন্ধু, সাবধান হও। আর তোমায় ছেড়ে তোমার ভুল মানুষটা চলে গেছে তুমি যদি এরকম কেউ হও – তাহলে তোমাকে স্বাগতম। কারণ, তুমি যদি ঐ ভুল মানুষটিকে নিয়েই জীবন কাটাতে তবে এর চেয়েও ভয়ংকর পরিস্থিতির স্বীকার তোমায় হতে হতো।

সংকলনেঃ জান্নাতি

আজ এখানেই শেষ করছি। আবারও আসবো নতুন কোনো বিষয় নিয়ে। সেই পর্যন্ত সবাই সুস্থ্য, ‍সুন্দর ও ভালো থাকুন। করোনাকে ভয় নয় – সচেতন থাকুন।

অ্যাডমিনঃ

আপনাদের সাথে রয়েছি আমি মোঃ আজগর আলী। ছোট বেলা থেকেই কম্পিউটারের প্রতি খুব আগ্রহ ছিল। মানুষের সেবা করারও খুব ইচ্ছে। আর তাই গড়ে তুলেছি স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক ওয়েবসাইট সানরাইজ৭১। আশা করছি, আপনারা নিয়মিত এই ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন এবং ই-স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন:

Subscribe: Dinajpur School

সাম্প্রতিক পোস্টসমুহ

আজকের দিন-তারিখ

  • বুধবার (রাত ৮:৫০)
  • ১২ই মে ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ২৯শে রমজান ১৪৪২ হিজরি
  • ২৯শে বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)