আজ রবিবার,৬ই আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,২০শে জুন ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কার্বাংকল বা বিষ ফোড়ার হোমিওপ্যাথি অত্যাধুনিক চিকিৎসা

কার্বাঙ্কল (বিষ ফোঁড়া)

 

রোগ বিবরন : ইহা এক প্রকার সাংঘাতিক স্কোটক। এই স্ফোটকে অনেক গুলি ক্ষুদ্র ক্ষ্রদ্র মুখ হয়। কার্বাস্কলে পুঁজ জন্মিবার আগে অত্যন্ত বেদনা ও জ্বালা হইতে থাকে। সেই জ্বালা বা বেদনা রাত্র ভাগেই বেশী।কার্বাঙ্কল সাধারনতঃ কোমড়ে, ঘাড়ে বা পৃষ্ঠ দেশে অধিক হইতে দেখা যায়। কার্বাঙ্কল পুঁজ না হইলে আশস্কা জনক। বৃদ্ধ বয়সে বহুসূত্র রোগীদের কার্বাঙ্কল প্রায়ই মারাত্নক হয়।

চিকিৎসা

এনথ্র্যাসিনাম (Anthraxinum) : কার্বাঙ্কল অর্থাৎ বিষ ফোঁড়ায় ছোট ছোট ছিদ্র হইতে রস ঝরে ভয়ানক স্পর্শ কাতরতা বেদনা ও জ্বালা। সেই বেদনা ও জ্বালায় রোগী ছট ফট করে। জ্বলে যন্ত্রনা ঠান্ডা জলে উপশম।

সেবন বিধি : শক্তি 30, 200 দিনে এক মাত্রা।

আর্সেনিক এলব (Arsenic Alb) : রোগী অত্যন্ত অবসান, অন্তদাহ, অস্থিরতা, মৃত্যু ভয়, পুনঃ পুনঃ অল্প পরিমানে জল পান করে। কার্বাঙ্কলের জ্বালা যন্ত্রনা ঠান্ডায় বৃদ্ধি। রাত্র ১২ টা থেকে ২ টা বৃদ্ধি। উত্তাপে উপশম।

সেন বিধি : শক্তি 30, 200 সকাল বিকাল দুই মাত্রা।

কার্বোভেজ (Carbo Veg) : দুষ্ট ব্রন, কার্বাঙ্কল কালো রংয়ের ক্ষত হইতে দুর্গন্ধ পুঁজ বা রস ঝরে অত্যন্ত জ্বালা, সেই জ্বালা যন্ত্রনা রাতে বৃদ্ধি ঠান্ডায় উপশম, রোগী নিয়মিত পাখার বাতাস চায়। ইহাই কার্বোভেজের প্রধান পরিচয়।

সেবন বিধি : শক্তি 30 বা 200 তিন ঘন্টা অন্তর দুই চার মাত্রা ।

ল্যাকেসিস (Lachesis) : কার্বাঙ্কলের স্থানটি বেগুনী রংয়ের, তাহাতে সহজে পুঁজ হইতে চায়না। যদিও অল্প হয় তাহাতে রক্ত মিশ্রিত। অত্যন্ত জ্বালা, সেই জ্বালা যন্ত্রনা নিদ্রার উপক্রমে কিংবা নিদ্রা ভঙ্গ হইলেই বৃদ্ধি পায়।

সেবন বিধি : শক্তি 30 বা 200 তিন ঘন্টা অন্তর দুই চার মাত্রা।

ট্যারেন্টুলা (Terentula) : প্রচুন্ড জ্বর, আক্রান্ত স্থানের রং নীলাভ, হুল ফুটানো বেদনা, জ্বালা যন্ত্রনা, গাত্রদাহ ছট ফটানি জল পিপাসা কার্বাঙ্কলে অনেক গুলি মুখ হইয়া তাহা হইতে রসের মত নির্গত হইতে থাকে।

সেবন বিধি : শক্তি 6 বা 30 তিন ঘন্টা অন্তর সেব্য।

এব্রোমা আগষ্টা (Abroma Aug) : বহুমূত্র রোগীদের কার্বাঙ্কলে সহজে পুঁজ না হইলেও অত্যন্ত বেদনা থাকিলে ইহাতে উপকার হয়।

সেবন বিধি : শক্তি Q চার ফোটা সামান্য জলসহ তিন ঘন্টা অন্তর।

বাইকেমিক চিকিৎসা

ফেরাম ফস (Ferrum Phos): আক্রান্ত স্থান লাল, চিরিক মারা, দপ দপানি ব্যথায় ইহা উপকারী।

সেবন বিধি : শক্তি 6x ২-৪ বড়ি এক মাত্রা বয়ষ অনুপাতে তিন ঘন্টা অন্তর।

ক্যালি মিউর (Kali Mur) : কোষ্ঠ বদ্ধ, জিহ্বায় শ্বেত বর্ণের প্রলেপযুক্ত রোগীদের পীড়ায় দ্বিতীয়বস্থায় ফেরাম ফসের সহিত পর্যায়ক্রমে সহিত সেবন করিতে হয়।

সেবন বিধি : শক্তি 6x ২-৪ বড়ি এক মাত্রা বয়স অনুপাতে দুই ঘন্টা অন্তর।

ম্যাগনেশিয়া ফস (Magnesia Phos) : আক্রান্ত স্থানে বেদনা, গরম তাপে বা সেকে উপশম হইলে ইহা অব্যর্থ।

সেবন বিধি : শক্তি 3x, 6x ২-৪ বড়ি এক মাত্রা বয়স অনুপাতে প্রতি এক ঘন্টা গরম জলসহ।

সাইলেসিয়া (Silieca) : কার্বাঙ্কালে পুঁজ সঞ্চয় হইতে থাকিলে ইহা উপকারী।

সেবন বিধি : শক্তি 6x, 12x ২-৪ বড়ি এক মাত্রা বয়স অনুপাতে তিন ঘন্টা অন্তর।

পথ্য ও আনুষাঙ্গিক ব্যবস্থ

বিলাতি বেগুন (টমেটো), কাঠের পিড়ির উপর রাখিয়া কাঠ দিয়া পিষিয়া কার্বাঙ্কলের উপর মোটা প্রলেপ দিলে কার্বাঙ্কলের জ্বালা যন্ত্রনা কমিতে শুরু করে। চার ঘন্টা পর পর এই প্রলেপ বদলাইয়া নতুন করিয়া দিতে হয়। টমেটো যদি না পাওয়া যায় আতা ফলের পাতা গরম পানিতে ধুইয়া পাত গুলি বাটিয়া গরম করিয়া কার্বাঙ্কলের উপর প্রলেপ দিয়া একটি পান আগুনে সেকিয়া বাধিয়া দিবে। দিনে তিন বার এই ভাবে বদলাইয়া দিতে হয়। পুঁই পাতা বাটিয়া কার্বাঙ্কলে প্রলেপ দিলে জ্বালা যন্ত্রনা নিবারন হয়। (এন, সি, ঘোষ) বেল পাতা বাটিয়া কার্বাঙ্কলের ঘায়ে লাগাইলে ঘা আরোগ্য হয়। (জে. এম. মিত্র)।

অ্যাডমিন বার্তাঃ

আপনাদের সাথে রয়েছি আমি মোঃ আজগর আলী। ছোট বেলা থেকেই কম্পিউটারের প্রতি খুব আগ্রহ ছিল। মানুষের সেবা করারও খুব ইচ্ছে। আর তাই গড়ে তুলেছি স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক ওয়েবসাইট সানরাইজ৭১। আশা করছি, আপনারা নিয়মিত এই ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন এবং ই-স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন:

ইমেইলে পোস্ট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন:

সাম্প্রতিক পোস্টসমুহ

আজকের দিন-তারিখ

  • রবিবার (রাত ১১:৫৬)
  • ২০শে জুন ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ৯ই জিলকদ ১৪৪২ হিজরি
  • ৬ই আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
জাতীয় হেল্প লাইন